1. admin@news24hour.net : admin :
যেসব টেকনিকে এসি ছাড়াও থাকবে ঘর ঠান্ডা - নিউজ ২৪ আওয়ার
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন

যেসব টেকনিকে এসি ছাড়াও থাকবে ঘর ঠান্ডা

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৩ জুন, ২০২৩
  • ৩৩ বার পঠিত

কিছু দিন থেকে দেশজুড়ে চলছে তীব্র দাবদাহ। এতে অতিষ্ঠ হয়েছে জনজীবন। গরমের কারণে রুমে ঘুমানো দুরূহ হয়ে পড়েছে। শুধু তাই নয়, গরমের কারণে রুমে অবস্থান করা কঠিন হয়ে যাচ্ছে। সময়মতো না ঘুমানোর ফলে স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে মানুষের।

এ পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণ পেতে বেশিরভাগ লোকজন সঙ্গী করেছেন এসি অথবা এয়ারকুলারকে। কিন্তু অনেকের বাড়িতেই এসি বা কুলার নেই, তবে ফ্যানে স্বস্তি পাওয়া মুশকিল হয়ে উঠছে। তবে কিছু টেকনিক অবলম্বন করলে রুমের ভেতর এসির স্বাদ পাওয়া যাবে অর্থাৎ রুম ঠান্ডা রাখা যাবে। তাই সবার টেকনিকগুলো জেনে রাখা উচিত।

প্রথমত, আপনার বাড়ির যে অংশটি দিয়ে সবচেয়ে বেশি বাতাস চলাচল হয়, আপনি সেই পাশের জানালাগুলো খোলা রাখতে পারেন। তা হলে সূর্যাস্তের পরে আপনার ঘর বাতাসে পরিপূর্ণ হবে।

দ্বিতীয়ত জানালা খোলা রাখুন দিনের বেলা নয়, সূর্যাস্তের পরে। গ্রীষ্মকালে দিনের বেলা গরম বাতাস, তাই চেষ্টা করবেন দুপুরের সূর্যের প্রখর তাপ যেন ঘরে প্রবেশ না করে। তবে সূর্যাস্তের পরে যখন তাপমাত্রা কিছুটা কমে যায় এবং ঠান্ডা হাওয়া শুরু করে তখন জানালা-দরজা খুলে দিন, যাতে বাতাস ঘরের ভেতরে প্রবেশ করতে পারে। ঠান্ডা বাতাসে ঘরের তাপ দূরীভূত হয়ে যাবে।

তৃতীয়ত, আপনার বাড়ি শীতল রাখতে চাইলে সাদা বা হালকা রঙের সুতির কাপড় বিছানার চাদর হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। বিছানার চাদর মোটা হলে ঘাম বেশি হয়। সাদা ও হালকা রঙের উপাদান তাপ শোষণ করে না, বরং প্রতিফলিত করে।

ঠান্ডা রাখার জন্য ঘরের চারপাশে গাছপালা লাগাতে পারেন। ছায়া দিতে পারে এমন গাছ পূর্ব-পশ্চিম অনুযায়ী লাগান, আপনার বাড়িতে সরাসরি সূর্যের তাপ ঢুকতে বাধা পাবে। ঘরের চারপাশে ঘাসজাতীয় গাছ থাকলে ঘর ঠান্ডা থাকে।

হোয়াইট ছাদ গ্রীষ্মে প্রাকৃতিকভাবে ঘরকে শীতল রাখার অন্যতম সেরা প্রক্রিয়া। সাদা রঙ তাপ শোষণ করে না, বরং প্রতিফলিত করে। তাই হোয়াইট রঙ সূর্যের রশ্মিকে প্রতিফলিত করবে এবং আপনার বাড়িকে প্রাকৃতিকভাবে শীতল রাখবে।

ঘরেই এয়ারকন্ডিশনার তৈরি করতে এক বাটি আইস কিউব বা বরফ নিয়ে তা ফ্যানের সামনে বা নীচে রাখুন, তার পর ফ্যান চালু করে দিন চালান। কিছুক্ষণ পর যখন বরফগুলো গলতে শুরু করবে, তখন বাতাস ওই ঠান্ডা শোষণ করবে এবং চারদিকে ছড়িয়ে দেবে। ফলে বরফের জন্য ফ্যানের হাওয়া ঠান্ডা হবে এবং সারা ঘরে ঠান্ডা বাতাস ছড়াবে।

জানালায় গরমকালে পর্দার বদলে বাঙালির অতিপরিচিত খসখস টাঙাতে পারেন। এতে বাইরের তাপ সবচেয়ে ভালো আটকানো যায়। আগে খসখস ভিজিয়ে দেওয়া হতো। কিন্তু তা না করলেও চলবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ নিউজ ২৪ আওয়ার
Theme Customized By Shakil IT Park